অবশেষে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেল বাছেরুন নেছা

 

মোঃ আব্দুল বাতেন বাচ্চু
নিজস্ব প্রতিবেদক:

বাকপ্রতিবন্ধী বাছেরুন নেছা। ৭০ বছরের বৃদ্ধা। বিশ বছর আগে বাবা-মাকে হারিয়েছেন। পিতার মৃত্যুর পর ভিটেমাটি ছাড়া কিছুই রেখে যেতে পারেননি সন্তানের জন্য। তাই অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নেন। একটি ঘরের জন্য চরম কষ্টে দিনাতিপাত করছিলেন।

অবশেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশে একটি গতি হয় তার। ফারহানা ও সাদ্দাম হোসেন অনন্ত নামের দু’ব্যক্তি এ বৃদ্ধাকে একটি ঘর নির্মাণ করে দিতে এগিয়ে আসেন।

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার নিজমাওনা গ্রামের মৃত বাছের আলী মাতা মমিরনের মেয়ে বাছেরুন নেছা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃদ্ধ বয়সে দেখার মত কেউ নেই তার। স্থানীয় জনপ্রতিনিধির দ্বারে দ্বারে ঘুরেও জোটেনি কোন সহায়তা।

স্থানীয় এলাকাবাসী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাছেরুন নেছা অন্যের বাড়িতেই বসবাস করতেন। কয়েকদিন আগে সাদ্দাম হোসেন অনন্ত তাকে একটি ঘর তৈরি করে দিয়েছেন। বাছেরুন নেছার জীবনের শেষ বেলায় এমন একটি ঘর তৈরি করে দিয়ে শান্তিতে বসবাস করার সুযোগ করে দিয়েছেন।

সাদ্দাম হোসেন অনন্ত বলেন, বাছেরুন নেছার এমন তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে বিষয়টি আমার নজরে আসে। পরে খোজঁ নিয়ে টিনসেড ঘর, পাকা মেঝে ,ঘরের আসবাবপত্র খাবারের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল ডালসহ এক মাসের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়। নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী বাছেরুন নেছার ঘরসহ সকল কিছুর দায়িত্বও নিয়েছি। বৃদ্ধ বয়সের সময়টুকু যেন ভালো ভাবে কাটাতে পারে ভবিষ্যতেও খোঁজ নিবো।

উল্লেখ্য, সাদ্দাম হোসেন অনন্ত ফাহিম কম্পিউটার ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা।

পাঠক মন্তব্য

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!