গাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান ঢাকায় ,পরিষদের দায়িত্বে ভাগিনা !!!

রিপোর্টার রমজান আলী রুবেল:
২০১৬ সালের ইউনিয়ন পরিষ নির্বাচনে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকা নিয়ে নির্বাচিত হন নূরুল ইসলাম।
উচ্চ রক্তচাপ ডায়াবেটিস আরো বেশকিছু রোগে আক্রান্ত তিনি। এর ফলে বছরের বেশি সময় রাজধানীর ধানমণ্ডির বাসায় অথবা হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা নিতে হয়েছে তার। এদিকে নাগরিক সেবা ভেঙে পড়ে ইউনিয়ন পরিষদে। দিনের পর দিন ঘুরে কেউ পেয়েছেন সেবা আবার অনেকেই না পেয়ে ফিরে গেছেন।
তবে ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি প্রকল্পের কাজ করেছে তাঁর ভাগিনা সবুজ আহমেদ। প্রকল্পের কাজ আর ট্রেড লাইসেন্স করা নিয়ে রয়েছে জনগণের নানা অভিযোগ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, জন্ম নিবন্ধন, ট্রেড লাইসেন্স, নাগরিক প্রত্যয়নপত্র মৃত্যু সনদ, উত্তরাধিকার সনদসহ যত ধরনের নাগরিক সেবা রয়েছে নিয়মের মধ্যে কেউ পায়নি। দিনের পর দিন ঘুরে চরম ভোগান্তির পর এসব সেবা পেয়েছে এই ইউনিয়নের নাগরিকরা। বর্তমানে প্রায় তিন মাস ধরে একাধারে পরিষদে না আসার অভিযোগ করেছেন স্থানীয় নাগরিকরা।
পরিষদের গ্রাম পুলিশ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জানিয়েছেন, পরিষদে আসা নাগরিক সেবা প্রত্যাশীরা দিনের পর দিন ঘুরেই সেবা নিতে হয়। কারন কয়েক বছর ধরে চেয়ারম্যান অফিসের চেয়ে ঢাকার বাসায় থাকেন। এর ফলে পরিষদের সকল কাগজপত্র স্বাক্ষর করিয়ে আনতে হয় বাসা থেকে।
গাজীপুর বাজার গ্রামের মৃত হাসেন আলীর ছেলে মজিবু রহমান জানায়, একটি প্রত্যয়নপত্রের জন্য এক মাস ধরে ঘুরেছি। চেয়ারম্যান না থাকায় তিনি প্রত্যয়নপত্র নিতে পারছেন না। জন্ম সনদ নিতে আসা বাঁশবাড়ি গ্রামের নিসান আলীর ছেলে আব্দুল রহিম জানায়, তিন মাসের বেশি সময় ধরে ঘুরেও জন্ম নিবন্ধন পাচ্ছিনা। ইউনিয়ন পরিষদের সচিবও করেন খারাপ ব্যবহার। অন্যদিকে চেয়ারম্যানের এমন অনুপস্থিতিতে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় উন্নয়নের কোন ছোঁয়া লাগেনি চেয়ারম্যানের নিজের গ্রামে। কাঁচা রাস্তা ইটের সলিং করে দেওয়ার আশ্বাসে বুক বাঁধলেও বছরের পর বছর চেয়ারম্যানের দেখাও পায়নি তার গ্রাম নিজমাওনার বাসিন্দারা। এমন অভিযোগ একাধিক মানুষের।
এবিষয়ে জানতে গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইসলামকে মোঠোফোনে পাওয়া যায়নি। তবে তাঁর ভাগিনা সবুজ আহমেদ জানান, তার মামা (ইউপি চেয়ারম্যান) অসুস্থ ঢাকায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।
শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান না থাকার বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
পাঠক মন্তব্য

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!