জলাতঙ্ক রুগে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু

নাজমুল ইসলাম শ্রীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে আবুল হোসেন (৫০) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের টেংরা (বৃন্দাবন) এলাকার আবদুল বাতেনের ছেলে।

উল্লেখ্য গত দুই মাস পূর্বে আবুল হোসেনের স্ত্রী পারভীন আক্তারকে হটাৎ করে পাগলা কুকুর এসে কামরাতে থাকে সেই সময় আবুল হোসেন তাকে কুকুরের কামর থেকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসে। একপর্যায়ে তিনি কুকুরটিকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে মেরে ফেলেন। মারার সময় তার হাতের আংগুলের মাঝে আঘাত পায় কিন্তু সে আঘাতের বিষয়টি এরিয়ে যায় এবং শুধু মাত্র তার স্ত্রী পারভীন আক্তারকে জলাতঙ্কের টিকা দেন এবং নিয়মিত চিকিৎসা করান।

ঘটনার প্রায় দুই মাস পর আবুল হোসেনের শরিরে জলাতঙ্ক রোগের লক্ষণ দেখা যায় পরে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসার অবনতি হলে তাকে চিকিৎসক বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। বাড়িতে আসার পরে সে অস্বাভাবিক আচরণ করতে শুরু করে একপর্যায়ে তাকে সিকল দিয়ে আটকিয়ে রাখা হয়।
অদ্য আজ(২৬ সেপ্টেম্বর) রবিবার  বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটের সময় সিকলে বাধা অবস্থায় মারা যান।
মৃত্যু কালে তিনি দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন।

কুকুরের কামরের বিষয়ে এলাকাবাসী জানান আমাদের বাড়ির এই রাস্তাটি দিয়ে প্রতিনিয়ত রাতের আধারে আব্দুর রউফ মৃধার মাধ্যমে ময়লা ফালানো হয়। এই ময়লা ফালানোতে এলাকায় কুকুর এবং শিয়ালের পাদুর্ভাব অনেক বেড়েগেছে। প্রায় সময় শিয়াল কুকুর এসব ময়লা খেয়ে পাগল হয়ে মারা যাচ্ছে। হঠাৎ কিছু দিন আগে এক পাগলা কুকুর বাড়িতে এসে আবুল হোসেনের বউকে কামরাতে থাকে পড়ে এই ঘটনা ঘটে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুর রউফ মৃধা বলেন আমি ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। আমি পৌরসভার ময়লা আবর্জনা গুলো আমার নিজস্ব জমিতে ফসল না হওয়ার কারণে এখানে ৬ মাস যাবত ফালাচ্ছি। ময়লা ফালানোর জন্য যদি কারো ক্ষতি হয় তাহলে প্রয়োজনে আর ময়লা ফেলবো না।

পাঠক মন্তব্য

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!