ইসলামপুরে মহিলা মাদরাসা থেকে তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর প্রতিনিধি ॥

জামালপুরের ইসলামপুরে মহিলা মাদ্রাসা থেকে তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছে। সোমবার বিকেলে মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান ইসলামপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি নম্বর-৫১১) করেছেন। এ ঘটনায় থানা পুলিশ ২শিক্ষক ২ শিক্ষিকাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাতেই আটক করেছেন।


গোয়ালেরচর ইউনিয়নের মেজর জেনারেল খালেদ মোশারফ বীরউত্তম সেতুর পুর্বপাড়ের বাংলা বাজার এলাকায় দারুত তাক্বওয়া মহিলা ক্বওমী মাদরাসাটি অবস্থিত। মাদ্রাসাটিতে ৭৫জন শিক্ষার্থীকে ৮জন শিক্ষক পাঠদান করান। মাদ্রাসার মোহতামিত আসাদুজ্জামান পরিবার নিয়েই মাদ্রাসা ভিতরে একটি কক্ষে বসবাস করেন। সাইনবোর্ড সর্বস্ব তাক্বওয়া মহিলা মাদ্রাসা নামে মাদ্রাসাটি ২০২০সাল থেকে পরিচালনা করে আসছেন তিনি।
ইসলামপুর থানা সূত্রে জানায়ায়, ওই মাদরাসা থেকে উপজেলার গাইবান্ধা ইউনিয়নের পোড়ারচর সরদারপাড়া গ্রামের মাফেজ শেখের মেয়ে মীম আক্তার (৯), গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভূকুড়া গ্রামের সুরুজ্জামানের মেয়ে সূর্যবানু (১০) ও মোল্লাপাড়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের মেয়ে মনিরা (১১) নামের দ্বিতীয় শ্রেনির তিন শিক্ষার্থী গত দুইদিন আগে ভোর থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ রয়েছে।
মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘মাদ্রাসা আবাসিক হওয়ায় শিক্ষার্থীরা রাতে মাদরাসা কক্ষেই থাকে। ঘটনার দিন ভোর রাতে শিক্ষার্থীদের ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে জাগানো হয়। অন্যান্য ছাত্রীর মতোই দ্বিতীয় শ্রেণির ওই তিন ছাত্রীও নামাজের প্রস্তুতি নেয়। নামাজের পর থেকে তাদের আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাদের উদ্ধারে থানায় জিডি করেছি।
ইসলামপুর সার্কেলের এএসপি সুমন মিয়া জানান- শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনায় মাদ্রাসার সকল শিক্ষার্থীকে রাতেই তাদের অভিবাবকদের হাতে তুলে দিয়ে মাদরাসা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুহতামিম মাওলানা আসাদুজ্জামানসহ চরজনকে থানায় আনা হয়েছে। নিখোঁজ শ্ক্ষিার্থীদের খোঁজে বের করতে চেষ্টা চালছে।

পাঠক মন্তব্য

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!