বানারীপাড়ায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের কাছ থেকে উৎকোচ নেওয়ার অভিযোগ

মো. সুজন মোল্লা,বানারীপাড়া
বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক বিএনপি এবং আওয়ামী লীগ নেতা বর্তমানে আবারো আওয়ামী লীগ বনে যাওয়া আনোয়ার হোসেন মৃধার বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের কাছ থেকে অর্থ নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের জিড়াকাঠি গ্রামের সরকারি আবাসনে সবাসরত ৩৩টি ভূমিহীন পরিবার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধার বিরুদ্ধে ১২ সেপ্টেম্বর রবিবার বেলা ১২টায় বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ওসি এবং   প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন দপ্তরে এ লিখিত অভিযোগ করেণ।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায় সাবেক এই চেয়ারম্যান সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দেওয়ার কথা বলে  আবাসনে থাকার জন্য আবেদনকারীদের কাছ থেকে ৫ /১০ হাজার টাকা করে নেন।
২০০৬ সালে ভূমিহীন পরিবারগুলোকে সরকারের কাছ থেকে ফেরত না দেওয়ার শর্তে এক লাখ টাকা করে পাইয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রত্যেক পরিবার থেকে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা করে উৎকোচ নেন তিনি।
  বিভিন্ন দপ্তরে তদবির করে ঘর পাকা করে দেওয়াসহ আবাসনে উন্নয়নমূলক নানা সুযোগ সুবিধা এনে দেওয়ার কথাও তিনি বলেছিলেন ওই সময়। কিন্তু পরবর্তীতে কোন সুযোগ সুবিধাই তারা (ভূমিহীনরা) পাননি। উপরন্তু তাদের জন্য জন্য নির্মিত ঘর থেকে পানি পড়াসহ বসবাস অযোগ্য হয়ে পড়ে।
মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে  প্রতারণা করায় ভূমিহীন পরিবারগুলো সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন তাদের লিখিত অভিযোগে।
 এ বিষয়ে সৈয়দকাঠি ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধা প্রেসক্লাববকে জানান, সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ইউএনও তখন ওই আবাসন নির্মাণ করেছিলেন। টাকা নেওয়া তো দূরের কথা তখন সেখানে তিনি যেতেই পারেননি।
তবে এ বিষয়ে ভূক্ত ভোগীদের মতামত ভিন্ন কথা বলছে। তারা বলেন, ওই সময়ে তিনি গিয়েছিলেন।  টাকাতো ঘর বরাদ্ধের কিছুদিন পরে নিয়েছেন চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধা।
এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  রিপন কুমার সাহা বলেন, তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পাঠক মন্তব্য

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!