গফরগাঁও পাগলা থানায় সন্ত্রাসী হামলায় সাবেক যুবলীগ সভাপতি গুরুতর আহত 

বিশেষ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ গফরগাঁও উপজেলা গত ১০ই মে ২০২০,পাগলা থানা নিগুয়ারী  ইউনিয়নের কুরচাই হামাইল পাড়া গ্রামে গরুর ঘাস ক্ষেতের আইলে খাওয়াকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা সংগঠিত হয়।
পাগলা থানায় হামলার শিকার সিরাজ উদ্দিন  জানান,পূর্ব শত্রুতার জেরে কুরচাই হামাইল পাড়া গ্রামের হুকুমদাতা বিএনপি জামায়াত পহৃি আব্দুল আওয়ালের ছেলে শাহাবুদ্দিন,ছাত্তার,জহিরুল,মাঈনুউদ্দিন,দুই ছেলের বউ জোসনা মর্জিনা সহ আরও ৩/৪ জন খুন করার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আমি সহ আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের উপর আক্রমন করে। আমার মাথায় রামদা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্য কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে,মাথায় ১২ টি সেলাই লাগে। এর আগে পূর্বে ২০০১ সালে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে আমার উপর একাধিক হামলা করে,যাহা আমার শরীরের বিভিন্ন ক্ষত স্থান ভিডিওতে দেখিয়েছে।আমি সাবেক ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি,বর্তমানে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয়,এই ব্যাপারে আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার প্রার্থনা করি। হামলায় গুরুতর আহত সিরাজ উদ্দিন শ্রীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন,সিরাজ উদ্দিনের অবস্থা বর্তমানে আশংকাজনক। এই হামলার ঘটনায় সিরাজ উদ্দিনের স্ত্রী সেলিনা খাতুন বাদী হয়ে ০৬ জনকে আসামী করে পাগলা থানায় একটি অভিযোগ  দায়ের করেছেন। এই বিষয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই রুহুল আমিন অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!