করোনা ভাইরাসে বিক্রি নেই ফুল, কেশবপুরে মাঠেই শুকোচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল

আবু হুরায়রা রাসেল যশোর জেলা প্রতিনিধি,যশোরের কেশবপুরের অঞ্জু সরকার(ফুল বৌদির) মাঠে নানান রঙের ফুলের সমারোহ। মনটা দিব্যি ভালো হয়ে যায় মাঠভরা রংধনুর রঙ দেখলে। বাহারি ফুলের সমারোহে কার না মন ভালো হয় কিন্তু মন ভালো নেই ফুল বৌদির  ফুলচাষিদের।আজকের এই করোনা ভাইরাসের মহাসংকটের দিনে কে কিনবে ফুল করোনা অতিমারীর কোপে ফুলচাষিরা।মাঠের পর মাঠ ফুল বাগিচার ফুল নষ্ট হতে বসেছে। ছলছল চোখে তাকিয়ে আছে ফুল চাষের সাথে জড়িত শ্রমিকরা অসহায়তার মধ্যে কাটাচ্ছে প্রতিটা দিন।
অঞ্জু সরকার বলেন তাদের ফুল চাষে বিনিয়োগ করা অর্থের পুরোটাই নষ্ট গেল। বিশেষ বিশেষ দিবসে যে ফুলের কদর বাড়ে বহুগুণ। করোনাভাইরাস এর মধ্যে সকল প্রকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ব্যাপক ক্ষতি ফুলের সাথে সংশ্লিষ্ট পরিবারগুলো।
কঠোর পরিশ্রমের ফুল তুলে ফেলে দিতে হচ্ছে গাছ নষ্টের ভয়ে। গোটা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। বাজার হাট, যানবাহন বন্ধ। ফুল বিক্রি নেই। গাছেই নষ্ট হচ্ছে ফুল।
তুলে নেওয়া গাছের সেই সব ফুল আজ আবর্জনা হিসেবে ফেলে দিতে হচ্ছে। অঞ্জু সরকার বিষন্ন কন্ঠে বলে ফুলচাষি ও শ্রমিকরা ফুল চাষের ক্ষতিপূরণের জন্য তাকিয়ে আছে সরকারের দিকে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!