জামালপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, সময় ও ইন্ডিপেনডেন্ট টিভির সাংবাদিককে মারধর, ক্যামেরা ভাংচুর।

এল এফ লিটন সরকার দেওয়ানগঞ্জ জামালপুর থেকে,

 

 জামালপুর শহরের শাহপুর এলাকায় দুই পক্ষের সংঘর্ষ, সময় টিভি ও ইন্ডিপেনডেন্ট টিভির ক্যামেরাপার্সনদের মারধর, সময় টিভির ক্যামেরা ভাংচুর।

 

জামালপুরে ত্রাণের স্লিপের তালিকা তৈরী নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে সময় টিভি ও ইন্ডিপেনন্ডেন্ট টিভির ক্যামেরাপার্সনসহ উভয়পক্ষের ২০ জন আহত। এসময় তাদের ক্যামেরা ভাংচুর করা হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। জামালপুর শহরের শাহপুর এলাকায় শনিবার ০২ মে সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ত্রাণের স্লিপকে কেন্দ্র করে জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন এবং ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন সেতুর মধ্যে বিরোধ তৈরী হয়। বিরোধের জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুপক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইটপাটকেল নিক্ষেপ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংর্ঘষে লিপ্ত হয়। সংর্ঘষে উভয় পক্ষের ১৮ জন আহত হয়েছে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাকা গুলিবর্ষণ করে। এসময় দায়িত্ব পালনকালে হেলাল কাউন্সিলরের ছেলে অন্তরের নেতৃত্বে সময় টিভির ক্যামেরাপার্সন আবুল কালাম আজাদ ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির ক্যামেরাপার্সন আল-আমিনকে মারধর করে তাদের ক্যামেরা ভাংচুর করে। গুরুতর আহত সময় টিভির ক্যামেরাপার্সন আবুল আজাদকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং ইন্ডিপেনডেন্ট টিভির ক্যামেরাপার্সন আল আমিন প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কর্মস্থলে ফিরে আসেন।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!