গাইবান্ধায় করোনায় ৮১ থেকে কোয়ারেন্টাইনে ১০৬২ জন, ছাড়পত্র পেয়েছে ১৬৫ ।

 

শেখ মোঃ সাইফুল ইসলাম গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি। গাইবান্ধায় গত ২৪ ঘন্টায় বৃহস্পতিবার করোনা ভাইরাসে নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। তবে জেলায় করোনায় আক্রান্তের রোগীর সংখ্যা মোট ১৯ জন, এরমধ্যে একজন মারা গেছে, বাকিদের মধ্যে একজন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, অন্য ১৭ জন গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের আইসোলেসনে রয়েছেন। এছাড়া ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন শেষে ছাড়পত্র পেয়েছে ১৬৫ জন, জেলা সিভিল সার্জন সুত্রে জানা যায়,জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ১ হাজার ৬২ জন চিকিৎসাধীন রোগী হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। এরমধ্যে সুন্দরগঞ্জে ২১, গোব্দিন্দগঞ্জে ২২৪, সদরে ১৭৩, ফুলছড়িতে ১৯২, সাঘাটায় ২৮২, পলাশবাড়িতে ২৮, সাদুল্যাপুর উপজেলায় ১৪২ জন । অপরদিকে আরো জানা যায়, গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালের একজন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব) করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর প্যাথলজি ও বহির্বিভাগ গত বুধবার সন্ধ্যায় লকডাউন ঘোষণা করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শনাক্ত হওয়া ওই টেকনোলজিস্টকে আইসোলেসন হাসপাতালে নেয়া হয়েছে, এ ঘটনায় হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে প্যাথলজি বিভাগের আরও চারজনকে। করোনায়ায় শনাক্ত হওয়া ওই ব্যক্তির বাড়ি গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলায়, তবে প্যাথলজি বিভাগ ও বহির্বিভাগ লক ডাউন হওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে বহির্বিভাগ সেবা জরুরী বিভাগের বকে নেয়া হয়েছে বলে হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে। এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে যারা করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে, যেতো তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছিল প্যাথলজি বিভাগে। পরে এসব নমুনা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মাধ্যমে পাঠানো হতো রংপুর মেডিকেল কলেজের করোনা শনাক্তের পিসিআর ল্যাবে। আর এ কাজে যুক্ত ছিলো প্যাথলজি বিভাগের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব) তিনজন, ল্যাব অ্যাটেনডেন্ট একজন ও এমএলএসএস একজন। সম্প্রতি এক মেডিকেল টেকনোলজিস্টের করোনার উপসর্গ কাশি দেখা দিলে তার নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে করোনা পরীক্ষা করে তার করোনা শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে, এমতাবস্থায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্যাথলজি বিভাগ ও বহির্বিভাগ লক ডাউন ঘোষণা করে তালাবদ্ধ করে দিয়েছেন । করোনা শনাক্ত হওয়া ওই মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে গাইবান্ধা আনসার ও ভিডিপি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অস্থায়ী আইসোলেসন কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!