কেশবপুরে স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৩ ব্যক্তির শরীরে করোনা পজেটিভ শনাক্ত সকলের বাড়ী লক ডাউন

আবু হুরায়রা রাসেল 

যশোরের কেশবপুরে স্বাস্থ্যকর্মীসহ, ৩ ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। আক্রান্তদের মধ্যে ২ জনকে, কেশবপুর হাসপাতালের আইশ্লোসনে ভর্তি করা হয়েছে। প্রশাসন আক্রান্তদের বাড়ী লক ডাউন করেছে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, মহামারি   করোনার মধ্যেও গত কয়েক দিন আগে,  উপজেলার আওয়ালগাতি  গ্রামের আয়ুব আলী  তার স্ত্রী বকুল খাতুন, একমাত্র সন্তান সামিয়াকে, নিয়ে পাশ্ববর্তি দেশ  ভারত থেকে এলাকায় ফেরেন।

এ খবর জানতে পেরে এলাকাবাসী, তাদেরকে বাসায় থাকতে দিচ্ছিল না।  এক পর্যায়ে সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, কাজী  মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্তর সহায়তায়, তাদেরকে পরিক্ষা করার জন্য কেশবপুর হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়।  হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার গত ২৩ এপ্রিল তাদের প্রত্যেকের নমুনা সংগ্রহ করেন, এবং  একই সাথে অপর  আক্রান্ত ব্যক্তি, কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল এ্যাসেসট্যান্ড(স্যাকমো), সনজিদ কুমার বিশ্বাসের নমুনা  সংগ্রহ করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে পাঠান।

নমুনা পরিক্ষা শেষে ২৬ এপ্রিল (রবিবার), রিপোর্টে স্বাস্থ্যকর্মী সনজিদ কুমার বিম্বাস ও  আয়ুব আলীর স্ত্রী  বকুলে দেহে করোনা ভাইরাস পজিটিভ ধরা পড়ে।
এদিকে ২৩ এপ্রিল উপজেলার পাঁজিয়া ইউনিয়নের ঈমাননগর গ্রামের বারিক মোড়লের ছেলে সোহাগের শরীরে করোনা ধরা পড়ে।  সোহাগ মনিরামপুরে করোনায় আক্রান্ত  স্বাস্থ্যকর্মী কর্মী রবিউলের শ্যালক।
কেশবপুর উপজেলা পরিবার-পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন,  এ পর্যন্ত কেশবপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৩ জন।

এর মধ্যে একজন কেশবপুর উপজেলা সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা,একজন ভারত ফেরত রয়েছে। আক্রান্ত স্বাস্থ্য সহকারী কর্মকর্তা সনজিত কুমার ও  বকুল খাতুনকে হাসপালের আইশ্লোশনে ভর্তি করা হয়েছে। অপর জনের বাড়ী কেশবপুর-মনিরামপুরের সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় তাকে মনিরামপুর হাসপাতালের আওতায় চিকিৎসা চলছে।
এ বিষয়ে কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান জানান, করোনায় আক্রান্ত বকুল খাতুনের বাবার বাড়ী  ধর্মপুর ও শ্বশুর বাড়ী আওয়ালগাতি,  এবং স্বাস্থ্য সহকারী কর্মকর্তার ভাড়াবাড়ী সাহাপাড়া, ও সোহাগের গ্রামের বাড়ী ঈমানগরের বাড়ী,  লগ ডাউন করা হয়েছে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!