প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলা বগুড়া জেলা লকডাউন ঘোষণা করা হয়োছে

মোঃ নাজমুল হাসান নাজির

 

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ  ঝুঁকি  মোকাবেলায় বগুড়া জেলাকে লকডাউন বা অবরুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ২১ এপ্রিল বিকেল ৪টা থেকে তা কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। মঙ্গলবার দুপুর পৌণে ২টায় বগুড়া জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জেলার সিভিল সার্জনের সুপারিশের ভিত্তিতে লকডাউনের ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জরুরী ওই গণবিজ্ঞপ্তিটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে।বগুড়ায় পাঁচ দিনের ব্যবধানে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জফেরত দুই ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দু’জনই জেলার আদমদীঘি উপজেলার বাসিন্দা। তার পরিপ্রেক্ষিতেই লকডাউনের সিদ্ধান্ত কি’না জানতে চাইলে বগুড়ার জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ জানান, সেটি একটি দিক। তাছাড়া বগুড়ার পরিস্থিতি এখনও অনেক ভাল আছে। পরিস্থিতির যাতে অবণতি না হয় সেজন্যই জেলার সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সুপারিশের ভিত্তিতে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।গত ১৬ এপ্রিল প্রথম যিনি করোনা আক্রান্ত বলে সনাক্ত হয়েছেন তিনি পুলিশের একজন কনস্টেবল। তার বাড়ি আদমদীঘি উপজেলার নশরৎপুর ইউনিয়নের সাঁওইল গ্রামে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত ২৯ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি গত ১০ এপ্রিল ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। ১৩ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। ১৬ এপ্রিল রাতে তার রিপোর্ট আসে এবং সেখানে তাকে করোনা পজিটিভ বলে উল্লেখ করা হয়। এর পর পরই পুরো আদমদীঘি উপজেলা লকডাউন ঘোষণা করা হয়। বর্তমানে ওই ব্যক্তি করোনা আইসোলেশন ইউনিট বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
সর্বশেষ ২১ এপ্রিল সকালে আদমদীঘি উপজেলাধীন সান্তাহার পৌরসভার সাহেব পাড়ার ২৮ বছর বয়সী এক ট্রাক চালককে করোনা আক্রান্ত বলে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়। আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শহিদুল্লাহ্ দেওয়ান দৈনিক একুশের বাণী কে জানান, ওই ব্যক্তি নারায়ণগঞ্জে বসবাস করেন। তিনি গত ১৪ এপ্রিল রাতে বাড়িতে ফেরেন। পরদিন তিনি জ্বর ও কাশির সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে আসেন। করোনার উপসর্গ থাকায় তাকে ওইদিনই হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। তিনদিনের মাথায় গত ১৮ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। মঙ্গলবার সকালে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তিকেও মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!