পালংখালী বাজারে লকডাউন হোম কোয়ারান্টাইন মানা হচ্ছে না।

নুরুল বশর।   

লকডাউন, হোম কোয়ারেন্টাইন, আইসুলেশন যাই বলেন, পালংখালী বাজারে কোনো  পরিবর্তন হচ্ছে না!  এই বিষয়ে দুইএকবার অনলাইন নিউজ পোর্টালে নিউজ হলেও বহালতবিয়ত রয়েছে মানুষের জমজমাট এই বিষয়ে খুব প্রকাশ করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে মানবাধিকার সংগঠন এর নেতা ছৈয়দ মিয়া ও পালংখালী ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ এর সভাপতি এম এ মনজুর, শাহাদাত হোসেন জুয়েল সহ খুব প্রকাশ করেন।

কারন বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব জুড়ে যখন করোনাভাইরাসের প্রভাবে লকডাউন করা হয়েছে এবং লাখের  উপরে মানুষ মারাগেছে, আর আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৮ লাখ মানুষ, ঠিক এমন সময় উখিয়া উপজেলার পালংখালী বাজারে রাস্তার উন্নয়ন কাজের  দৃশ্য দেখছিল কয়েকশত লোক। যাদের মধ্যে চলমান করোনাভাইরাসের মহামারি সম্পর্কে কোন ধরনের অনুভূতি কিং বা ভয় ভীতি নেই!

পালংখালী ৭ নাম্বার ইউপি সদস্য নুরুল হক জানান, যেখানে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য সরকার সারাদেশকে লকডাউন ঘোষণা করেছেন এবং প্রশাসনকে মাঠে নামিয়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য দিন রাত কাজ করে যাচ্ছে এমন সময় পালংখালী বাজারে হাজার  মানুষের সমাগম সত্যিই ভাবিয়ে তোলার মত। আমি দৈনিক দশ বারের মতো মাইকিং করি এরপর ও থামানো যাচ্ছে না সরকারের কাজে সহযোগীতা করা প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব কিন্তু আমরা তা না করে উল্টো তার সমালোচনা করছি। এ ব্যাপারে আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করি।

তাছাড়া সচেতন মহলকেও এই ব্যাপরে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি তার অভিমত প্রকাশ করে বলেন, আমরা সরকারি নির্দেশনাগুলো মেনে চলব, ঘরে থাকব সুস্থ থাকব! অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের হবনা, প্রয়োজনে বের হলেও কাজ সেরে দ্রুত বাসায় ফিরব।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!