মুন্সিগঞ্জ থেকে লোক ভর্তি ট্রলারটি কুড়িগ্রাম যাওয়া বন্ধ করে দিলো

নিজস্ব প্রতিবেদক
 করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে সড়কে যানবাহন এবং নৌপথে ফেরি ও লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। কিন্তু তারপরও ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে গাদাগাদি করে বিভিন্ন জেলা থেকে গন্তব্যে ফিরছেন মানুষ।
শনিবার দুপুরে ইটভাটার শ্রমিক বোঝাই এরকম একটি ট্রলার মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার আরিচা ঘাটে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে। পরে তাদেরকে আগত পথেই ফিরিয়ে দেয়া হয়। মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থেকে ৭০/৮০ জন ইটভাটা শ্রমিক ওই ট্রলারে করে কুড়িগ্রাম যাচ্ছিল।
করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে নৌ-পথে অবৈধভাবে যাত্রী পরিবহন বন্ধে শনিবার থেকে মানিকগঞ্জের পদ্মা-যমুনায় নৌ-টহল কর্মসূচি চালু করেছে জেলা পুলিশ। দুপুরে আরিচা ঘাটে এ টহল কাযক্রমের উদ্বোধন করেন শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানিয়া সুলতানা।
এসময় শিবালয় থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী দিনেই মুন্সিগঞ্জ থেকে আসা ওই ট্রলারসহ বেশ কয়েকটি যাত্রী বোঝাই নৌ-যানকে আগত পথে ফেরত দিয়ে সর্তক করা হয়।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানিয়া সুলতানা জানান, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে পাটুরিয়া
দৌলতদিয়া এবং আরিচা-কাজিরহাটসহ অভ্যন্তরীণ রুটে ফেরি, লঞ্চ এবং স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। তারপরও এক শ্রেণির ট্রলার মালিক ও শ্রমিকরা নৌ-পথে অবৈধভাবে যাত্রী পরিবহন করছে। এর ফলে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ায়। এই পারাপার বন্ধে এখন থেকে প্রতিদিনই নদীতে পুলিশি টহল অব্যাহত থাকবে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!