যশোরের শার্শায় সরকারি লকডাউন আদেশ অমান্য ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা আদায় অব্যাহত

খোরশেদ আলম : 
যশোরের শার্শা ও বেনাপোল সরকারি আদেশ অমান্য করে খাবারের দোকান, চায়ের দোকান,যাত্রী পরিবহনে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা ওয়েল্ডিং এর দোকান খোলা রেখে জনসমাগম করার অভিযোগে ৪ হাজার ৭শ’ টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
শুক্রবার দিনব্যাপী পুলিশ ফোর্সসহ উপজেলার নিজামপুর, গোড়পাড়, লক্ষণপুর, শিকারপুর, বাহাদুর, শাকারিপোতা, বোয়ালিয়া, পোড়াবাড়ি নারায়নপুর, বেনাপোল পৌরসভার বিভিন্ন বাজার বিকালে নাভারণ, উলাশী,জাঁমতলা, সাতমাইল, বাগআঁচড়া, সেঁতাই, গোগা বাজার মনিটরিং কালে এ জরিমানা আদায় করেন শার্শা উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোরশেদ আলম চৌধুরী।
এসময় বিভিন্ন বাজারে এবং স্থানে লকডাউন আইন অমান্য করে খাবারের দোকান, চায়ের দোকান, যাত্রী পরিবহনে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা, ওয়েল্ডিং এর ওয়ার্কসপ খোলা রেখে জনসমাগম করার অপরাধে ৮জন ব্যক্তি/ দোকানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। নিজামপুর বাজারে মুছা করিমকে ৫০০/- টাকা, গোড়পাড়া বাজারে গোলাম মোস্তফা, মহিউদ্দিন, আকাশ রহমানকে যথাক্রমে ১,০০০/- টাকা, ৫০০/- টাকা, ৫০০/- টাকা এবং লক্ষণপুর বাজারের মোকলেচুর রহমানকে ১০০/- টাকা জরিমানা  করা হয়।
বিকালে শার্শা ইউনিয়নাধীন মোঃ মোমিনকে চায়ের দোকান খোলা রাখার অপরাধে ১০০/- টাকা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখে ফার্মেসীতে ঔষধ বিক্রি করার অপরাধে বাগআঁচড়া বাজারস্হ ফারিয়া ফার্মেসী এবং আশা ফার্মেসীকে ১,০০০/- টাকা হারে জরিমানা করা হয়। মোট ৮ টি প্রতিষ্ঠানের বিপরীতে আদায়কৃত জরিমানার পরিমাণ সর্বমোট ৪,৭০০/-(চার হাজার সাতশত) টাকা।
এসময় বিভিন্ন মসজিদে ৫ জনের বেশি মুসল্লী জামাতে নামাজ আদায় করতে দেখা যাওয়ায়। সম্মানিত মুসল্লীগণকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জামাতে নামাজ আদয়ের বিষয়ে ইসলামিক ফাইন্ডেশনের বিশেষ বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে অবহিত করা হয় এবং ৫ জন মুসল্লী মসজিদে প্রবেশ করলে মসজীদের গেইট লক করে দেওয়া জন্য অনুরোধ করা হয় এসময় সকল মুসল্লী একমত পোষণ করেন।
উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন,করোনা ভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধে অপ্রয়োজনে বিভিন্ন স্থানে ভিড় না করা এবং সামাজিক দূরত্ব বাজায় রাখার জন্য সকল ব্যবসায়ী, সাধারণ মানুষকে বোঝানো স্বত্বেও তারা আইন অমান্য করে দোকান পাট খোলা রাখার অভিযোগে তাদের এ জরিমানা করা হয়েছে।
এসময় পথচারী ও সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধে অযথা ঘুরাফেরা না করে বাসায় অবস্থান করার জন্য বলা হয় এবং মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে সচেতন করা হয়। তিনি আরও বলেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!