ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান এর স্মৃতি বিজড়িত স্মৃতিফলক পরির্দশন

সাহেদ আহম্মেদ সৌরভ ঃ

আজ ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শতবার্ষিকীতে কৃষ্ণনগর আব্দুল জব্বার স্কুল এন্ড কলেজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশপ্রেম,ব্যক্তিত্ব রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, সাংস্কৃতি দর্শন জনসাধারনের মাঝে ছড়িয়ে দিতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত ফলক পরির্দশন করেন।

নবীনগর উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোহাম্মদ মাসুম,
নবীনগর উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি ইকবাল হাসান, এই সময় উপস্থিত ছিলেন কৃষ্ণনগর আব্দুল জব্বার স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি হাজী আক্তার হোসেন, কৃষ্ণনগর আব্দুল জব্বার স্কুল এন্ড কলেজের ভার প্রাপ্ত অধ্যক্ষ্য মোঃ ফেরদাউসুর রহমান,কৃষ্ণনগর আব্দুল জব্বার স্কুল এন্ড কলেজের আজীবন দাতা সদস্য ও বিদ্যোৎসাহী আলহাজ্ব দেলোয়ার হোসেন খান।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৪৯ সালে শুরুর দিকে তৎকালীন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমার নবীনগর থানার কৃষ্ণনগর হাই স্কুলের দ্বারোদঘাটন করার জন্য এম এ রফিকুল হোসেনের নেতৃত্বে সভার আয়োজন করেন, ঐ সময় বিখ্যাত গায়ক আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ, সোহরাব হোসেন ও বেদারউদ্দিন আহম্মদ গান গাইবেন, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্নজীবনীর ১১০ ও ১১১ পৃষ্ঠায় উল্লেখ আছে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষ্ণনগর আব্দুল জব্বার স্কুল এন্ড কলেজ মাঠটি স্মৃতি বিজড়িত ছিল, ঐ সময় বঙ্গবন্ধু যাদের সাথে সাক্ষাৎ তাদের মধ্যে নূরু মিয়া ও মাহাবুব মাস্টারের বক্তব্য শুনেন, নবীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাসুম বলেন বঙ্গবন্ধু কোন দলের নয় ও কোন ব্যক্তির নয় সবার জন্য বঙ্গবন্ধু। নির্বাহী অফিসার বলেন বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিফলকটি দেখার দায়িত্ব এলাকাবাসীর সবার।

পরে অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক মুফতি আব্দুর রউফ এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধাদের জন্য বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করেন, এই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নবীনগর উপজেলার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহাবুব আলম লিটন, বিভিন্ন মেডিয়ার সাংবাদিক ও অত্র প্রতিষ্ঠানের সম্মানীত শিক্ষক গন ও এলাকার সম্মানীত ব্যক্তিবর্গ।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!