গাজীপুর মহানগর চাপুলিয়া টেকপাড়া এলাকায় সানজিদার উপর যৌন নিপীড়নের জন্য জবরদস্তি

গাজীপুর মহানগর চাপুলিয়া টেকপাড়া এলাকায় সানজিদার উপর যৌন নিপীড়নের জন্য জবরদস্তি

নাজমুল ইসলাম গাজীপুর   ঃগাজীপুর মহানগর ২৪নং ওয়ার্ড চাপুলিয়া টেকপাড়া এলাকায় স্কুলের সামনের রাস্তা দিয়ে সন্ধ্যায় বাসায় ফেরার পথে কিছু উশৃংখল বকাটিয়া ছেলে সানজিদাকে মুখে কাপড় বেঁধে তুলে নিয়ে যাই। স্কুলের উত্তর-পূর্ব কোনাই পরিত্যক্ত একটি বিল্ডিং এর ছাদের উপরে তখন বকাটিয়া ছেলেরা সানজিদার উপর জোর পূর্বক আক্রমণ করে। এ ব্যাপারে সানজিদাকে জিজ্ঞেস করিলে বলেন যৌন নিপীড়িত বিভিন্ন স্পর্শ কাতর স্থানে হাত দিতে শুরু করে উশৃংখল ও বকাটিয়া তিন চারজন ছেলে তখন আমি চিৎকার শুরু করি এবং ইজ্জত রক্ষার্থে এক পর্যায়ে ছাদের উপর থেকে ঝাঁপ দেই। সানজিদার চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন একত্রিত হয়ে উশৃংখল বকাটিয়া ছেলেদের কাছ থেকে সানজিদাকে রক্ষা করেন। আশেপাশের এলাকার লোকজন সানজিদা কে চিনতে পেরে তাহার আত্মীয়-স্বজন তার বাবাকে সংবাদ দেন এবং তাহার বাবা ও আত্মীয়-স্বজন মিলে দ্রুতগতিতে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান । পরবর্তীতে সানজিদার বাবা জসিম উদ্দিন বলেন আমার মেয়েকে ১।মোঃ রায়হান সরকার (মীম)পিতা মোঃ জহিরুল সরকার ২।মোঃ রাসেল পিতা জিল্লুর রহমান ৩।মোঃ আমিরুল পিতা হাইয়ু ৪।রোহান পিতা মোশারফ সরকার উক্ত ছেলেগন নিয়ে যাই। আমার মেয়ে ছাদ থেকে পড়ে ডান পায়ে, কোমরে, ঠোঁটের ডান পাশে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। উক্ত ঊশৃংখল ও বখাটে ছেলে গনপ্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছে যদি এই বিষয় নিয়ে বাড়াবাড়ি করি তাহলে ভালো হবে না। এর চাইতে ভয়াবহ রূপ নেবে বলেন। এ ব্যাপারে গাজীপুর মেট্রো সদর থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করি। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় উক্ত ছেলেগুলো ঊশৃংখল বকাটিয়া প্রায় সময়ই তারা এই ধরনের কাজকামের সাথে জড়িত থাকে। এব্যাপারে স্থানীয় লোকজন কিছু বলতে গেলে তাদেরকে হুমকি এবং মারপিট করবে বলে তাই এলাকার লোকজন ভয়ে কিছু বলতে আগ্রহ প্রকাশ করেন নাই। তবে এটুকু বলেন এই ঘটনার সাথে উক্ত ব্যক্তিবর্গ জড়িত। গাজীপুর সদর মেট্রো থানা অফিসার ইনচার্জ বলেন উক্ত ঊশৃংখল বকাটিয়া ছেলেদেরকে অতিশিগ্রই গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!