সুন্দরগঞ্জে গরু চুরির অপবাদে কিশোরকে নির্যাতন: আটক ২

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় মধ্যযুগীয় কায়দায় ১৩ বছরের এক কিশোরকে চুরির অপবাদে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে হাত-পা বেঁধে মধ্য যুগীও কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয় এলাকায়। আটক করা হয়েছে ঘটনার সাথে জড়িত দুই জনকে। আর অন্যান্যের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার।

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধুমাইটারী গ্রামে গেল শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে একটি গরু চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে রফিকুল ইসলাম নামের এক কিশোরকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায় একই গ্রামের ফজলু, ইয়াজুল ও নাজমুল। তারা রফিকুলকে গরু চুরির অপবাদ দিয়ে ফজলুর বাসায় সারারাত বেঁধে রাখে। পরদিন শনিবার (১১ জানুয়ারি) সকালে রফিকুলকে স্থানীয় আফসার প্রামানিকের বাসায় নিয়ে যায় এবং হাত-পা বেঁধে তার ওপর মধ্যযুগীয় কায়দায় অমানবিক নির্যাতন চালায় তনু প্রামাণিক, তাজু প্রামাণিক, তুহিন প্রামাণিক, লেলিন প্রামাণিক, সাবু প্রামাণিক ও মুসা প্রামাণিকসহ কয়েকজন। নির্যাতনের ফলে রফিকুল অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি রোববার সবার নজরে আসে এবং রাতে রফিকুল বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোমবার সকালে রানা মিয়া ও আইজল নামের দুই জনকে আটক করেছে এবং বাকিদের গ্রেফতারে সব ধরনের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম ।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

error: Content is protected !!