মেয়েকে অশ্লীল ছবি দেখাতেন শ্বেতার দ্বিতীয় স্বামী!

দ্বিতীয় পক্ষের স্বামী অভিনব কোহলি মেয়েকে মারধর ও গালিগালাজ করেন। এই অভিযোগ নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন টেলি অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। এমনকি মেয়েকে অশ্লীল ছবি দেখানোরও অভিযোগ রয়েছে তাঁর উপরে। এই অভিযোগগুলির ভিত্তিতে গ্রেফতার হয়েছিলেন অভিনব।

অবশেষে বৃহস্পতিবার ছাড়া পান অভিনব। শ্বেতা ও পলকের উপরে নিয়মিত গার্হস্থ্য হিংসা প্রসঙ্গে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। অভিনব জানান, আসল বিষয়টি প্রত্যেকের সামনে আসবে। প্রত্যেক বিষয়ের দুটো দিক থাকে।

শ্বেতা অভিনবের থেকে ডিভোর্স চাইছেন বলে জানা গিয়েছে এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে। অভিনব রাজি হননি।

প্রসঙ্গত, রাজা চৌধুরীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে ২০১৩ সালে অভিনবের সঙ্গে বিয়ে হয় শ্বেতার। জানা যায়, রাজা চৌধুরীও এক সময়ে শ্বেতার উপরে নির্যাতন করতেন বলেই সমস্যা শুরু হয়। ২০১৬ সালে অভিনবের সঙ্গে বিয়ের পরে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন শ্বেতা। ছেলে রেয়াংশের জন্ম হওয়ার পর থেকেই মেয়ে পলককে ঘিরে দুজনের মধ্যে সমস্যা শুরু হয় বলে জানা গিয়েছে।

সূত্র: এশিয়া নেট[the_ad id=”31184″]

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!