দুর্নীতিবাজদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না,নড়াইলে ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সারাদেশের দুর্নীতিবাজরা নজর দারিতে আছে। সময় মতো তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। দুর্নীতিবাজদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সুলতান মঞ্চে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস-দুর্নীতি, মাদক ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন। এ শুদ্ধি অভিযান সবাই মিলে সফল করতে হবে।

দেশে চলমান শুদ্ধি অভিযান সফল করতে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের কাছে আমি শুধু এই আহবান জানাবো, নেত্রীর শুদ্ধি অভিযান আপনারা সফল করবেন।

দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দুর্নীতিকে না বলুন, সন্ত্রাসকে না বলুন, মাদককে না বলুন, টেন্ডারবাজিকে না বলুন, চাঁদাবাজিকে না বলুন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিলবোর্ড দেখিয়ে নেতা হওয়া যায় না, নেতা হতে গেলে জনপ্রিয় হতে হয়। বাইরের থেকে দলে দলে লোক আনার দরকার নেই, দলে অসংখ্য কর্মী আছে। দলের ত্যাগিদের বাদ দিয়ে আত্মীয়করণ হাইব্রিডদের দলে আনার দরকার নেই। ত্যগি কর্মীরাই দলকে বাঁচিয়ে রেখেছে তাদের বাঁচাতে হবে। যারা দায়িত্ব পাবেন তারা বিষয়টি খেয়াল রাখবেন।

তিনি বলেন, দূরের স্বপ্নকে শেখ হাসিনা কাছে নিয়ে এসেছেন। পদ্মাসেতু নির্মাণ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন, পায়রা সমুদ্র বন্দর স্থাপন, ঢাকায় মেট্রোরেল চালুর পদক্ষেপ, মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ, সমুদ্র বিজয়সহ নানা উন্নয়ন এর প্রমাণ বহন করে। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছে গেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে উন্নয়নে বাংলাদেশ বিশ্বের রোল মডেল। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে জাতির পিতার হত্যাকারীদের এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা সম্ভবপর হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলুর পরিচালনায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ এমপি ও আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এস এম কামাল হোসেন ও পারভীন জামান কল্পনা, সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি, মাশরাফি বিন মর্তুজা ও শেখ শারহান নাসের তন্ময় প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করলে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে। নৈরাজ্য সৃষ্টি করে বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। বিএনপি বিচার মানে না, আদালত মানে না। বিএনপি যদি রাজনৈতিকভাবে আন্দোলন করে, আমরা তা রাজনৈতিক ভাবেই মোকাবেলা করবো। কিন্তু তারা যদি আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করে,তাহলে সমুচিত জবাব দেয়া হবে।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসকে সভাপতি এবং নিজাম উদ্দিন নিলুকে সাধারণ সম্পাদক এবং মো. জাহাঙ্গীর বিশ্বাসকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করে আগামী তিন বছরের জন্য নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এই কমিটি ঘোষণা করেন।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
error: Content is protected !!