হরিণাকণ্ডু উপজেলায় পরীক্ষা মূলক রসালো হলুদ গান্ডারী আঁখ চাষেবাম্পার ফলন

এম.টুকু মাহমুদ হরিণাকুণ্ডু থেকেঃ 

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে পরীক্ষা মূলক রসালো হলুদ গান্ডারী আঁখ চাষে বাম্পার ফলন     হয়েছে।

এবছর উপজেলার পারদখলপুর, পার্বতীপুর-আমেরচারা, হরিশপুর, চিথলিয়াপাড়া সহ বেশ কিছু গ্রামে আঁখ চাষ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পারদখলপুর গ্রামের আঁথ চাষি বাগামুল্লা বলেন, কৃষি অফিসের সকল সহযোগিতায় আমি ধানের জমিতে আঁখ চাষ করে ব্যাপক হারে ফলন পেয়েছি। মাত্র ১০শতক জমিতে আঁখ চাষ করে প্রায় ১লক্ষ টাকার আঁখ বিক্রয় করেছি। যেখানে ধান চাষ করলে খরচ বাদে আমার কোন লাভ হতো না।

কৃষক হায়াত আলী লস্কার বলেন, আমি বাগামুল্লার আঁখ চাষ দেখে নিজেও চাষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।  আগামীতে আমিও ৫কাঠা জমিতে আঁখ চাষ করব।

আমের চারার আমিরুল ইসলাম বলেন, প্রতিবিঘা জমিতে আঁখচাষে খরচ হয়,আশি থেকে নব্বই হাজার টাকা। যা বিক্রয় করলে তিন লক্ষ টাকার বেশি হবে,যেখানে খরচ বাদে কৃষকের ২লক্ষ টাকার কাছাকাছি লাভ হবে। আঁখ চাষের ঝুকির কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন আঁখ চাষের ঝুকি বলতে প্রথমত হলো আঁখে পোকা ধরা আর আঁখ পড়ে যাওয়া। ভালকরে তাঁর ও বাঁশের কোলাচ দিলে পড়ার সম্ভাবনা কম থাকলেও পোকা ঠেকানো কঠিন। এব্যাপারে আঁখ বড় হওয়ার সাথে সাথে খেয়াল রাখতে হবে যাতে জমিতে পঁচাপাতা না পড়ে।

কৃষি কর্মকর্তা আরশেদ আলী চৌধুরী সাংবাদিককে বলেন, আমরা কৃষকের সবসময় সকলপ্রকার স্বাভাবিক সহযোগিতা করেছি যার পরিপ্রেক্ষিতিতে এবছর উপজেলার পারদখলপুর, আমেরচারা, চিথলিয়াপাড়া সহ কয়েকটি গ্রামে পরীক্ষা মূলক আঁখচাষে বাম্পার ফলন হয়েছে। আশাকরি আগামীতে আরো অধিক জমিতে বেশিকরে আঁখচাষ হবে।

     More News Of This Category এই বিভাগের আরও খবর

ফেইজবুকে আমরা

error: Content is protected !!